“গ্রন্থগত বিদ্যা আর পরহস্তে ধন
নহে বিদ্যা নহে ধন হলে প্রয়োজন।”
কিন্তু অধঃপতিত এ যুগে অর্থ হস্তগত করতে গিয়ে বা হস্তগত অর্থ দ্বারা মানুষ এতটাই বেশি অপকর্ম করছে ও ব্যক্তিগত গ্রন্থাগারের গ্রন্থ অপরে পড়ার জন্য ধার নিয়ে এতটাই ফেরত দিচ্ছে না যে,এখন বাধ্য হয়ে বলতে হচ্ছেঃ
“নিজহস্তে অর্থ আর পরহস্তে গ্রন্থ
দুটোর কারণেই দুঃখ হয় অনন্ত।”

জগতে যত ধরণের বস্তু ধার নেয়া যায়, সেসবের মধ্যে সবচেয়ে কল্যাণকর ধার হচ্ছে পড়ার জন্য বই ধার নেয়া।আর সবচেয়ে ক্ষতিকর ধার হলো অর্থ ধার দেয়া। যুগান্তরের বান্ধব সুসম্পর্কও মূহুর্তেই নষ্ট হয়ে যেতে পারে অর্থ ধার চেয়ে না পেলে বা যথাসময়ে ধার দেয়া অর্থ ফেরত না দিলে। বই ধার দিলে বা দেয়া-নেয়া করলে অবশ্য অর্থের ধার দেয়া-নেয়ার ন্যায় সম্পর্কের অবনতি হয়না।কারণ গ্রন্থ ধারদাতা যে গ্রন্থ অপরকে ধার দেয়,সেটা সে আগে নিজে পড়ে সে গ্রন্থপাঠের আনন্দ আস্বাদন করে নেয়।ফলে নিজ অর্থে কৃত হলেও সে গ্রন্থ ধার দিতে অর্থধার দেবার মতো ততটা মায়া কাজ করেনা তার মনে যতটা মায়া কাজ করে অর্জিত অর্থ অপরকে ধার দেবার সময়।একারণেই মানব অর্থহীনতায় যতটা কষ্ট পায় তার চেয়ে বহুগুণ বেশি কষ্ট পায় লব্ধ অর্থ হারিয়ে গেলে।অনেক সময়ই অপরকে অর্থ ধার দেয়া যেন লব্ধ অর্থ হারানোর সমতুল হয়।কারণ অনেকেই অর্থ ধার নিয়ে সময়মতো ফেরত দেয়া তো দুরের কথা,ধারই ফেরত দিতে চায়না। বরং ধার দেয়া অর্থ ফেরত চাইতে গেলে ধারদাতাকেই কখনো কখনো বিপদগ্রস্ত হতে হয়!

ধার দেয়া বই ফেরত চাওয়াটা অবশ্য ধার দেয়া অর্থের ফেরত চাওয়ার মতো হয়না। অধিকাংশ ক্ষেত্রে বই ধার নেয়া ব্যক্তি বা বন্ধুর সাথে রাস্তাঘাটে সাক্ষাৎ হলে ধার দেয়া বই ফেরত দেবার জন্য সামান্য তাগাদা দেয়া হয় মাত্র,ধার দেয়া অর্থ ফেরত চাইবার মতো তীব্র তাগাদা সেখানে থাকেনা।তাই ধার দেয়া অর্থ ফেরত পাবার জন্য অর্থ ধারদাতা যেখানে নিজে অর্থ ধারকৃত ব্যক্তির বাসাবাড়ি বা কর্মস্থলে গিয়ে সশরীরে হাজির হয়,সেখানে ধার দেয়া বই ফেরত আনতে বই ধারকারীর বাসায় নিজে যাওয়া তো দুরের কথা,অধস্তন বা অনুজ কাওকেও ধারকারীর বাসায় পাঠানো হয়না।আবার ধার দেয়া অর্থ ফেরত পেলে মনে যতটা আনন্দ হয়,ধার দেয়া বই ফেরত পেলে কঠিন বইপ্রেমী ছাড়া অপরের ততটা আনন্দ হয়না।বিপরীতক্রমে, ধার দেয়া অর্থ ফেরত না পাওয়ার দুঃখও ধার দেয়া বই ফেরত না পাওয়ার দুঃখের চেয়ে বহুগুণ বেশি হয়। কারণ জগতের অধিকাংশ মানবই জ্ঞানসুখের চেয়ে অর্থসুখকে অধিকতর উপাদেয় মনে করে।